পদত্যাগ করলেন ব্রাজিলের নতুন স্বাস্থ্যমন্ত্রী

0
123

দায়িত্ব নেয়ার এক মাসের কম সময়ের মধ্যেই পদত্যাগ করেছেন ব্রাজিলের নতুন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. নেলসন টিয়েচ। শুক্রবার পদত্যাগ করেন তিনি। করোনা রোগীদের চিকিৎসায় অ্যান্টি ম্যালেরিয়া ওষুধ ক্লোরোকুইন ব্যবহারে ব্রাজিল প্রেসিডেন্ট জেইর বলসোনারোর চাপের পর স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদ ছাড়েন টিয়েচ।

গত ১৭ এপ্রিল স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব নেন অনকোলজিস্ট ও হেলথ কেয়ার কনসালটেন্ট টিয়েচ। টিয়েচের পূর্বসূরি লুইজ হেনরিকে ম্যানডেট্টাও ক্লোরোকুইন ব্যবহারে বলসোনারোর প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছিলেন।

তবে বলসোনারো প্রশাসনের শীর্ষ চারজন কর্মকর্তা বলেছেন, রোগীরা চাইলে তাদের ক্লোরোকুইন দেয়া যেতে পারে।

ব্রাজিলের কর্মকর্তারা জানিয়েছে, দেশটিতে এখন পর্যন্ত প্রায় ১৫ হাজার মানুষ করোনায় মারা গেছে। যদিও বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এই সংখ্যাটা আরও বেশি হতে পারে, কারণ পর্যাপ্ত পরীক্ষা করা হচ্ছে না। তারা বলছেন, ব্রাজিলের জন্য আরও খারাপ সময় অপেক্ষা করছে।
গত মাসেই স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় দ্বিতীয় ক্ষমতাময় ব্যক্তি হিসেবে নিয়োগ পান কোনও ধরনের মেডিকেল অভিজ্ঞতা না থাকা জেনারেল এদুয়ার্দো পাজুয়েল্লো। টিয়েচ পদত্যাগ করায় এখন পাজুয়েল্লোকে অর্ন্তবর্তী স্বাস্থ্যমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দিয়েছেন বলসোনারো।

ব্রাজিলের গণমাধ্যম জানিয়েছে, মন্ত্রণালয়ে কয়েক ডজন সেনা কর্মকর্তা নিয়োগ দিয়ে টিয়েচের কাজ করার ক্ষমতাকে খর্ব করা হয়েছে।

ব্রাজিলের রাজধানী ব্রাসিলিয়ায় এক সংবাদ সম্মেলনে টিয়েচ বলেন, আমরা জীবনে অনেক সিদ্ধান্ত নেই এবং আজ আমি পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। তবে তিনি কেন পদত্যাগ করেছেন তা জানাননি টিয়েচ। যদিও সেনাপ্রধান ব্রাগা নেট্টো বলেছেন, ব্যক্তিগত কারণে পদত্যাগ করেছে টিয়েচ। আর কোনও মন্তব্য করেননি বলসোনারো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here