রাস্তা পারাপারে ‘মোবাইল’ যখন জীবনের ঝুঁকি!

0
329
রাস্তা পারাপারে ‘মোবাইল’ যখন জীবনের ঝুঁকি
প্রশাসনের পক্ষ থেকে মোবাইল ফোনে কথা বলে রাস্তা পারাপার নিষেধাজ্ঞা থাকলেও মানছে না সাধারণ জনগণ। আগ্রাবাদ বাদামতলী মোড় থেকে তোলা। ছবি – এম ফয়সাল এলাহী

ছবি প্রতিবেদক : দিনের মধ্যভাগে রাস্তা পার হতে অপেক্ষায় এক ব্যক্তি। ঠিক এ সময় তার মোবাইল ফোনটি বেজে উঠলো। কোনো কিছু চিন্তা না করেই ফোন রিসিভ করে বলল ‘হ্যালো’। এর মধ্যে যেন ধৈর্যের বাঁধ ভাঙলো। এক হাত উঁচিয়ে ট্রাফিক সিগনালকে ‘বৃদ্ধাঙ্গুলি’ দেখিয়ে কথা বলতে বলতে রাস্তা পার হলেন। অবস্থা দেখে মনে হলো যেন হাঁফ ছেড়ে বাঁচলেন।

রাস্তা পারাপারে ‘মোবাইল’ যখন জীবনের ঝুঁকি!
থামছে না মৃত্যুর মিছিল মোবাইল ফোনে কথা বলে রাস্তা পারাপার পথচারী। আগ্রাবাদ বাদামতলী মোড় থেকে তোলা। ছবি – এম ফয়সাল এলাহী

চট্টগ্রাম নগরীর অন্যতম বাণিজ্যিক এলাকা আগ্রাবাদ বাদামতলী মোড়ের চিত্র এটি। মোবাইল ফোনে কথা বলতে বলতে বিভিন্ন বয়সের মানুষের পথচলা হরহামেশাই আমাদের নজরে পড়ে। যন্ত্রটির উপর মানুষ এতটাই বুঁদ যে জীবনের ঝুঁকি নিতেও তোয়াক্কা করছে না।

রাস্তা পারাপারে ‘মোবাইল’ যখন জীবনের ঝুঁকি
ঝুঁকি নিয়ে ফোনে কথা বলতে বলতে এভাবেই রাস্তা পার হচ্ছেন। আগ্রাবাদ বাদামতলী মোড় থেকে তোলা। ছবি – এম ফয়সাল এলাহী

নগরজুড়ে ব্যস্ততম সড়ক, মোড়ে এমন ঘটনা নিত্যনৈমিত্তিক। তথ্যপ্রযুক্তি বিপ্লবের যুগে মোবাইল ফোনের ব্যবহারকারী যেমন বেড়েছে, বেড়েছে অসর্তক ব্যবহারও।

বেপরোয়া গাড়ি চালানো, নিয়ন্ত্রণহীন গতি, অদক্ষ গাড়িচালক, ট্রাফিক অব্যবস্থাপনায় বেড়েই চলেছে সড়ক দুর্ঘটনা। তেমনি রাস্তায় বের হলেই দেখা যায় কানে মোবাইল ফোনে কথা বলা, ফেসবুকিং বা মেসেজ আদান-প্রদান, হেডফোন কানে নিয়ে গান শুনতে শুনতে রাস্তা পার হচ্ছেন অসংখ্য পথচারী। এসব পথচারী একবারও ভাবছে না তার এই অসর্তকতা আত্মহত্যারই শামিল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here